সরকারি খরচে হিন্দুরা তীর্থ ভ্রমণের সুযোগ পাচ্ছে: প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য

36

যশোর প্রতিনিধি
স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য বলেছেন,মুসলিম ধর্মের মানুষ সরকারি খরচে হজে যাওয়ার সুযোগ পান। একইভাবে সনাতন (হিন্দু) ধর্মের মানুষও সরকারি খরচে ভারতে তীর্থ ভ্রমণের সুযোগ পাচ্ছেন। গত বছর থেকে শুরু হয়েছে এই কার্যক্রম। এবছর যাতে বেশি সংখ্যক মানুষ তীর্থে যেতে পারে সরকার সেই ব্যবস্থা করবে। (১৭ ডিসেম্বর) মঙ্গলবার সকালে যশোর পিটিআই অডিটোরিয়ামে মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের ভূমিকা শীর্ষক কর্মশালা প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।
যশোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( সার্বিক) রফিকুল হাসানের সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য আরও বলেন, দেশের প্রাচীন মন্দির সংস্কারে সরকার উদ্যোগ নিয়েছে। প্রায় দুইশো কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া মন্দির সংস্কারে। ঢাকেশ্বরী মন্দিরের জমি দখলমুক্ত করা হয়েছে। যারা দীর্ঘদিন দখল করে রেখেছিল, তারা ক্ষতিপূরণ বাবদ চার কোটি টাকা চেয়েছিল। সনাতন ধর্মবলম্বী ব্যবসায়ী ও সংসদ সদস্য-মন্ত্রীরা মিলে দুই কোটি টাকা সংগ্রহ করা হয়। বাকী টাকার জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনার শরানাপন্ন হই। তিনি মানবিক, অসাম্প্রদায়িক চেতনার একজন মানুষ। তিনি তিনি বাকী দুই কোটি টাকা ও রেজিস্ট্রি খরচের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন।
তিনি আরও বলেন, একটি সরকার যদি অসম্প্রদায়িক, মানবিক হয়, তবে সেই রাষ্ট্রের কোন প্রজাদের কোন কষ্ট হয় না। সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করে রাজনীতি। সেই রাজনীতি যদি সুস্থধারায় চলে, তাহলে কোন সমস্যা হওয়ার কথা নয়।
বক্তব্য রাখেন মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম (৫ম পর্যায়) প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব রঞ্জিত কুমার দাস, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম রব্বানী, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি নিমাই চন্দ্র রায়, প্রবীণ শিক্ষক তারাপদ দাস, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক যোগেশ দত্ত, সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দুলাল সমাদ্দার।

SHARE

LEAVE A REPLY