টি-২০তে যত হ্যাটট্রিক,দেখে নিন একনজরে

55

ডেক্স রিপোর্ট রোববার দীপক চাহারের আগুনে ভারত জয়ের স্বপ্ন পুড়েছে বাংলাদেশের। ৭ রানে ৬ উইকেট নিয়ে টাইগারদের ব্যাটিং লাইন আপ ধসিয়ে দেন তিনি।দীপকের এই বোলিং ফিগার আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির ইতিহাসের সেরা বোলিং। সেই সাথে শেষ ৩টি উইকেট নেন তিনি পরপর তিন বলে। মানে হ্যাটট্রিক করেন তিনি।

ভারতের প্রথম বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে হ্যাটট্রিক করেছেন এই পেসার। আর এই সংস্করণে এটি ১২তম হ্যাটট্রিক। ১১তম বোলার হিসেবে এই তালিকায় নাম লিখিয়েছেন তিনি। শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা একমাত্র বোলার হিসেবে এই সংস্করণে ২ বার হ্যাটট্রিক করেছেন। মজার বিষয় হচ্ছে বাংলাদেশের বিপক্ষেই টি-টোয়েন্টিতে প্রথম হ্যাটট্রিক হয়। ২০০৭ সালে কেপ টাউনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম হ্যাটট্রিক করেন অস্ট্রেলিয়ার ব্রেট লি। তার শিকার হয়েছিলেন সাকিব আল হাসান, মাশরাফি বিন মুর্তজা ও অলক কাপালি।

এর পরের হ্যাটট্রিকটি হয় কলম্বোয় ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। নিউজিল্যান্ডের জ্যাকব ওরামের শিকার হন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, মালিঙ্গা বান্দ্রা ও নুয়ান কুলাসেকারা। তৃতীয় হ্যাটট্রিক করেন নিউজিল্যান্ডের পেসার টিম সাউদি। অকল্যান্ডে ২০১০ সালে তিনি শিকার করেন পাকিস্তানের ইউনিস খান, মোহাম্মদ হাফিজ ও উমর আকমলের উইকেট।

থিসারা পেরেরা ভারতের বিপক্ষে তুলের নেন টি-টোয়েন্টি ইতিহাসের চতুর্থ হ্যাটট্রিক। ২০১৫ সালে হার্দিক পান্ডিয়া, সুরেশ রায়না ও যুবরাজ সিংকে দিয়ে তিনি তার হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন। এর পরের হ্যাটট্রিকটি আসে লঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গার হাত ধরে। তার হ্যাটট্রিকটি বাংলাদেশের বিপক্ষে। ২০১৬ সালে কলম্বোয় তার শিকার হন মুশফিকুর রহীম, মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মেহেদী হাসান মিরাজ।

২০১৭ সালে আবু ধাবিতে হ্যাটট্রিক করেন পাকিস্তানের ফাহীম আশরাফ। তার আগুনে পোড়েন ইসুরু উদানা, মাহেলা উদায়ত্তে ও দানুস শানাকা। পরবর্তী ৬টি হ্যাট্রিকই হয়েছে চলতি বছর। যার শুরু আফগান স্পিনার রশিদ খানকে দিয়ে। দেরাদুনে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে পরপর ৪ বলে ৪ উইকেট নেন তিনি। তার শিকার কেভিন ও’ব্রায়ান, গেওর্গে ডকরেল, শেন গেটকেট ও সিমি সিং।

মালিঙ্গা তার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হ্যাটট্রিক করেন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। এবার তিনি নেন পরপর চার উইকেট। তার শিকার কলিন মুনরো, হামিশ রাদারফোর্ড, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ও রস টেইলর। দ্বিতীয় পাকিস্তানী বোলার হিসেবে এই সংস্করণে হ্যাটট্রিক করেছেন মোহাম্মদ হাসনাইন। লাহোরে পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কার সিরিজের প্রথম ম্যাচেই ভানুকা রাজাপাক্ষে, দানুশ শানাকা ও শিহান জয়াসুরিয়াকে আউট করে হ্যাটট্রিক করেন তিনি।

দশম হ্যাটট্রিকটি করেন ওমানের খাওয়ার আলি। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে তিনি তুলে নেন অ্যান্টোনিয়াস স্টাল, কলিন অ্যাককেরমান ও রোলফ ভ্যান ডার মিরুইর উইকেট। একাদশ হ্যাটট্রিকটির মালিক পাপুয়া নিউ গিনির নরম্যান ভানুয়া। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে বারমুডার বিপক্ষে এ কীর্তি গড়েন তিনি। তার শিকার ডিওন স্টোভেল, ক্যামাউ লেভারক ও ডিউন্ট ড্যারেল। গতকাল দিপক চাহালের শিকার হয়েছেন বাংলাদেশের শফিউল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান ও আমিনুল ইসলাম।

 

SHARE

LEAVE A REPLY