কেশবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবদল নেতার মেয়ে নিহত শোকাহত পরিবারের পাশে কেন্দ্রীয় নেতা অমিত ইসলাম

14

উৎপল দে, কেশবপুর (যশোর)
যশোরের কেশবপুর পৌর যুবদল নেতা আব্দুল হালিম অটলের মেয়ে সাবরিনা খাতুন (৩) সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে। শুক্রবার সকালে মায়ের সাথে বাড়ি থেকে নানার বাড়িতে যাওয়ার পথে দ্রুতগামী আলমসাধুর ধাক্কায় গুরুতর আহত হয়। তাকে দ্রুত উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসাধিন অবস্থায় রাতে সাবরিনার মৃত্যু হয়।
।নহত সাবরিনার পারিবারীক সুত্র জানায় শুক্রবার সকাল ১১ টার দিকে কেশবপুর পৌর যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও থানা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আব্দুল হালিম অটলের মেয়ে সাবরিনা খাতুন তার মায়ের সাথে বাড়ি থেকে মোটর চালিত ভ্যান যোগে উপজেলার আলতাপোল (২৩ মাইল) গ্রামে নানার বাড়িতে যাচ্ছিল। যাওয়ার পথে যশোর-সাতক্ষীরা সড়কের ২৩ মাইল নামক স্থানে নেমে তার মা আকলিমা খাতুন ভ্যান ভাড়া দিচ্ছিল। এ সময় চুকনগর থেকে কেশবপুরের দিকে ছেড়ে আসা দ্রুততগামী ্আলমসাধুর ধাক্কা খেয়ে সাবরিনা মারাত্মকভাবে আহত হয়।
শনিবার নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাপণ সম্পন্ন হয়। জানাজায় অংশ নেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় খুলনা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আল্হাজ্ব অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, যশোর জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকন, থানা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ বদরুজ্জামান মিন্টু, পৌর বিএনপি সাবেক সভাপতি ও কেশবপুর পৌর সভার সাবেক মেয়র আল্হাজ্ব আব্দুস সামাদ বিশ্বাস, থানা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান, পৌর বিএনপি নেতা শেখ শহিদুল ইসলাম, পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান প্রভাষক আলা উদ্দীন আলা, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক কুতুব উদ্দীন বিশ্বাস, থানা সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আলমগীর কবির বিশ্বাস, মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির পলাশ, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক কবির হোসেন বাবু, যুগ্ম-সম্পাদক নাজমুল হোসেন বাবুল, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা জাহাঙঙ্গীর কবীর মিন্টু ও হুমায়ুন কবির সুমন প্রমুখ সহ স্থানীয় শত শত মুসালিবৃন্দ। জানাজায় আরও অংশ নেন উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন, পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলামসহ দলমত নির্বিশেষে সকল স্তরের নেতা কর্মী।

SHARE

LEAVE A REPLY